সর্বশেষ সংবাদ

কোটা থাকলেও ঘুষ ছাড়া চাকরি হচ্ছে না মুক্তিযোদ্ধা সন্তানদের

১৯৭১ সালে বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের নেতৃত্বে যুদ্ধ করে দেশ স্বাধীন করেছিল মুক্তিযোদ্ধারা। স্বাধীনতার পর তাদের সম্মানার্থে বিভিন্ন খেতাব, ভাতা ও কোটা সুবিধা দেওয়া হয়। কিন্তু কোটা সুবিধা দেওয়ার পরও ঘুষ ছাড়া চাকরি মিলছে না মুক্তিযোদ্ধা সন্তানদের।

টিভিএনের সাথে একান্ত আলাপে এসব কথা জানান যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধারা। তারা বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসার পর যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য অনেক সুযোগ-সুবিধা দিয়েছেন। কিন্তু কিছু অসাধু ব্যক্তি তাদের স্বার্থে মুক্তিযোদ্ধাদের অসম্মান করছে। মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের চাকরির জন্য ঘুষ চাচ্ছেন। প্রধানমন্ত্রী এই ব্যাপারে ব্যবস্থা নিবেন বলেও আশা প্রকাশ করেন তারা।

যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা মো. শরাফত মোল্লা বলেন, মুক্তিযোদ্ধাদের সন্তানদের জন্য ৩০ শতাংশ চাকরির কোটার কথা থাকলেও আমাদের ছেলে-মেয়েরা চাকরি পাচ্ছে না। আমাদের ছেলে-মেয়েদের থেকে ৮ থেকে ১০ লাখ টাকা ঘুষ চাওয়া হয়। এত টাকা আমরা কোথায় পাবো। ঘুষ না দেওয়ায় আমাদের ছেলে-মেয়েদের চাকরি হচ্ছে না।

তবে এর বিপরীতেও কথা বলেছেন অনেকে। তারা বলেছেন, চাকরি করতে হলে তো অবশ্যই যোগ্যতা থাকতে হবে। যদি চাকরি করার যোগ্যতা না থাকে কিন্তু চাকরি করতে চান তাদের কীভাবে চাকরি হবে? এ সম্পর্কে যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা ফরিদ মিয়া বলেন, যাদের যোগ্যতা আছে তাদের সবাইকে চাকরি দেওয়া হচ্ছে। একজন মুক্তিযোদ্ধার সন্তান যদি লেখাপড়া না জানে তবে তাকে কিভাবে চাকরি দেওয়া হবে। তবে যোগ্যতা থাকার পরও যদি কেউ চাকরি না পেয়ে থাকে তার জন্য ব্যবস্থা গ্রহণ করা দরকার।

ঘুষ বাণিজ্য বন্ধে সরকারকে আরো কঠোর হওয়ার আহবান জানান যুদ্ধাহত এই মুক্তিযোদ্ধারা। Amadershomoy

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*